সমার্থক শব্দ – ০২

কিছু সমার্থক শব্দ:

১। পুত্র: নন্দনের তিন  ছেলে তনয় সুত ও সূনু।

** উপরের বাক্যের – নন্দন,ছেলে,তনয়,সুত ও সূনু – পুত্রের প্রতিশব্দ।

** দুলাল,আত্মজ, অঙ্গজ -এগুলোও  পুত্রের প্রতিশব্দ।

২।  কন্যা: পুত্রের প্রতিশব্দগুলোকে স্ত্রীবাচক করলেই সহজে কন্যার সমার্থক শব্দ পাওয়া যায়। যেমন –

নন্দন – নন্দিনী,

ছেলে – মেয়ে,

তনয় – তনয়া,

সুত – সুতা,

দুলাল- দুলালী,

আত্মজ – আত্মজা,

* দুহিতা – কন্যার প্রতিশব্দ।

৩।  স্বামী : দয়িতনাথ কান্তের স্বামী।

** উপরের বাক্যের – দয়িত,  নাথ, কান্ত – এগুলো স্বামীর প্রতিশব্দ।

৪। স্ত্রী: কলত্রদারের ভার্যাপত্নী ‘বনিতা’ অর্ধাঙ্গিনী না হয়ে সহধর্মিণী হতে চায়।

**উপরের বাক্যের – কলত্র, দার, ভার্যা, পত্নী,  বনিতা, অর্ধাঙ্গিনী ও সহধর্মিণী হল স্ত্রীর প্রতিশব্দ।

* *  ‘কান্ত’ অর্থ স্বামী হলে  ‘কান্তা’ স্ত্রী হবে।অর্থাৎ –

কান্ত (স্বামী) – কান্তা (স্ত্রী)।

৫। নারী :সীমন্তিনী অঙ্গনা রামা বামাকে কামিনী ও ভামিনীর কাছে পাঠালো।

** উপরের বাক্যে – সীমন্তিনী, অঙ্গনা, রামা, বামা, কামিনী ও ভামিনী হল নারীর প্রতিশব্দ।

** স্ত্রীজাতি, অবলা, ললনা, মহিলা রমণী  – এগুলো আমাদের জানাশুনা নারীর প্রতিশব্দ।

৬। রাজা:

** পৃথিবীর বেশিরভাগ প্রতিশব্দের সাথে ‘পতি(প)/পাল/নাথ/ইন্দ্র/ঈশ শব্দ যুক্ত হলে ‘রাজা’র প্রতিশব্দ হয়। যেমন –

ভূ +পতি = ভূপতি (রাজা),

ভূ +প =ভূপ (রাজা)

ভূ + পাল =ভূপাল (রাজা),

ক্ষিতি + পতি = ক্ষিতিপতি (রাজা),

ক্ষিতি + প =ক্ষিতিপ (রাজা),

মহী +পাল =মহীপাল (রাজা),

রাজ্য + পাল =রাজ্যপাল (রাজা),

মহী + নাথ =মহীনাথ (রাজা),

মহী + প =মহীপ(রাজা),

মহী + ইন্দ্র =মহীন্দ্র (রাজা),

ক্ষিতি + ঈশ=ক্ষিতীশ (রাজা)

** ‘নর / নৃ’ – এর পরে পতি(প)/পাল/ইন্দ্র/ঈশ যুক্ত হলেও ‘রাজা’র প্রতিশব্দ হয়। যেমন –

নৃপতি, নৃপ, নৃপেন্দ্র,নরপতি,নরেন্দ্র,নরেশ -এগুলোও রাজার প্রতিশব্দ।

** বাদশা, সম্রাট – আমাদের খুবই পরিচিত দুটো রাজার প্রতিশব্দ।

 

আলোচনা, সমালোচনা এবং মতামতের জন্য জয়েন করুন আমাদের ফেসবুক গ্রুপে

 

নিচের শেয়ারিং অপশন থেকে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন।

 

Comments

আমাদের ফেসবুক গ্রুপে সংযুক্ত আছেন? না থাকলে আপনার ফেসবুক এপ খুলে ‘BCS Corner‘ লিখে এখনই খোঁজ লাগান। প্রস্তুতির জন্য কতটা কাজে আসতে পারে যোগ না দিলে সম্ভব না জানা!